ছেলের সঙ্গে জাতীয় দলে খেলতে চান নবি

আফগানিস্তানের ক্রিকেট ইতিহাসের অন্যতম সেরা ক্রিকেটার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন মোহাম্মদ নবি। এক সময় দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন। বিশ্ব জোড়া ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগগুলোতেও নিয়মিত মুখ তিনি।

এরই মধ্যে ছেলে হাসান খানের সঙ্গে খেলার অভিজ্ঞতা হয়েছে নবির। শারজাহ স্টেডিয়ামে সিবিএফএস টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্টের একটি ম্যাচে বাবা-ছেলে একসঙ্গে খেলেছেন। গত বছরই নিজের পরিবার নিয়ে আরব আমিরাতের আজমানে পাড়ি জমিয়েছেন নবি।

আসন্ন পাকিস্তান সুপার লিগ (পিএসএল) ও জিম্বাবুয়ে সিরিজে। আরব আমিরাতে বুখাতির একাদশের হয়ে খেলতে গিয়েই নিজের ইচ্ছের কথা জানিয়েছেন তিনি। হাসানের বয়স এখন মাত্র ১৬ বছর গত বছর থেকেই শারজাহ ক্রিকেট অ্যাকাডেমীতে অনুশীলন করছেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে নবি বলেন, ‘আমি আশা করি আমরা একসঙ্গে খেলতে পারব এবং জাতীয় দলেরো যেন একসঙ্গে খেলতে পারি। আমি চেষ্টা করছি আরও কয়েক বছর আফগানিস্তানের হয়ে খেলার জন্য। লিগগুলোতেও খেলা চালিয়ে যেতে চাই।’

নবির বিশ্বাস তার ছেলে দ্রুতই আফগানিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ দলের হয়ে খেলবেন। এরপর সামর্থ্য প্রমাণ করতে পারলে জাতীয় দলেও আসবে। নবি বলেন, ‘হাসান আরও বড় হবে এবং আশা করি সে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলবে। তার যদি জাতীয় দলের খেলার সামর্থ্য থাকে তাহলে সে জাতীয় দলের হয়ে খেলবে।’

এর আগে প্রতিযোগিতামূলক কোনো লিগে খেলার অভিজ্ঞতা ছিল না হাসানের। বাবার হাত ধরে সেই অভিজ্ঞতাও হয়ে গেছে তার। খেলতে নেমে কিছুটা চাপে থাকলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে সেই চাপ সামলে নিয়েছেন বলে জানালেন নবি।

তিনি বলেন, ‘পরিপূর্ণ কোনো লিগে এবারই প্রথম খেলেছে। এবারই প্রথম আমরা একসঙ্গে খেলেছি। এটা দারুণ অভিজ্ঞতা ছিল। সে কিছুটা চাপে ছিল। কিন্তু সে অনেক প্রতিভাবান।’

Leave a Reply

Your email address will not be published.