চলছে পঞ্চ’ম দিনের অনশন, শিক্ষার্থীদের পাশে শিক্ষকরা

ভিসি অধ্যাপক ড. ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে শাহ’জালাল বিজ্ঞান ও প্রযু’ক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (শাবিপ্রবি) আ’ন্দোলন চলছেই। দাবি আদায়ে পঞ্চ’ম দিনের মতো অনশন চালিয়ে যাচ্ছেন শিক্ষার্থীরা। অনশনরত ২৩ শিক্ষার্থীদের মধ্যে ১৬ জন হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

এমনভাবে চলতে থাকলে অ’সুস্থ শিক্ষার্থীর সংখ্যা আরও বাড়বে। হাসপাতা’লে চিকিৎসাধীন ১৬ শিক্ষার্থীর মধ্যে কয়েকজনের অবস্থা আশ’ঙ্কাজনক বলে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকরা। এদিকে শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের পদত্যাগের দাবি জানিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের একটি সংগঠন।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) সকালে মহান মুক্তিযু’দ্ধের চেতনায় উদ্বুদ্ধ শিক্ষকবৃন্দ পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মোহাম্ম’দ মস্তাবুর রহমান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বি’জ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বি’জ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বর্তমান পরিস্থিতিতে আমাদের প্রিয় শিক্ষার্থীদের জীবন বিপন্ন হতে চলেছে। এমতাবস্থায় শিক্ষক হিসেবে আম’রা শুরু থেকেই চলমান সংকট থেকে উত্তরণের জন্য বিভিন্ন পর্যায়ে চেষ্টা করেছি। কিন্তু দুঃখজনকভাবে লক্ষ্য করছি যে, দায়িত্বশীল ব্যক্তিগণ শিক্ষার্থীদের ওপর পু’লিশের আক্রমণের ব্যাপারে কোনো অফিশিয়াল ব্যাখ্যা প্রকাশ্যে না দিয়ে কালক্ষেপণের মাধ্যমে অনশনরত শিক্ষার্থীদের জীবন চরম সংকটের মুখে ঠেলে দিচ্ছেন। এছাড়াও আম’রা চরম হতাশার সঙ্গে লক্ষ্য করেছি যে, এ সংক্রান্ত একটি ত’দন্তকমিটি গঠিত হলেও বাস্তবে উল্লিখিত ত’দন্তকমিটি কোনোরকম অগ্রগতি করেছে বলে দৃশ্যমান হচ্ছে না।

বি’জ্ঞপ্তিতে তারা আরো বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ে ঘটে যাওয়া যেকোনো ঘটনার দায়ভা’র কোনোভাবেই প্রশাসনের সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ এড়াতে পারেন না। এমতাবস্থায় আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে যাবতীয় বিষয়ে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনিক ব্যক্তিদের প্রত্যেকের অফিশিয়াল ব্যাখ্যা জনসমক্ষে উপস্থাপন করার দাবি জানাই। একইসঙ্গে উদ্ভূত পরিস্থিতির জন্য দায়ী ব্যক্তিদের পদত্যাগেরও জো’র দাবি করছি।

Leave a Reply

Your email address will not be published.